Saturday , May 15 2021

শারীরিক সম্পর্কের পর বিয়েতে অস্বীকার, প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে শিক্ষিকা

টানা ৯ দিন ধরে ধামরাইয়ে বিয়ের দাবিতে এক নৌ-বাহিনীর সদস্যের বাড়িতে অবস্থান করছে এক স্কুল শিক্ষিকা। ঘটনাটি ঘটেছে ধামরাইয়ের নান্নার ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের নৌ-বাহিনীর সদস্য আমির হোসেনের বাড়িতে।

স্থানীয়রা জানায়, ধামরাইয়ের লাড়িয়াকুণ্ড গ্রামের আব্দুল কাদেরের মেয়ে স্থানীয় কিন্ডার গার্ডেন স্কুলের শিক্ষিকা আখি আক্তারের (২০) সঙ্গে বছর খানেক আগে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে নান্নার ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে নৌ বাহিনীর সদস্য আমির হোসেনের (২৩)।

পরে ওই নৌ বাহিনীর সদস্য বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুল শিক্ষিকাকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে আসছিলো। এরপর ওই নৌ বাহিনীর সদস্যকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি স্কুল শিক্ষিকাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান।

স্কুল শিক্ষিকা আখি আক্তার (২০) জানান, বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত তিনি ওই বাড়িতে অবস্থান করবেন। অভিযুক্ত ওই নৌ-বাহিনীর সদস্য খুলনা নৌ-দপ্তরে কর্মরত রয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় নৌ-বাহিনীর সদস্য আমির হোসেনের মুঠোফোন বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, নৌ-সদস্য আমির হোসেন নৌ-বাহিনীর নিয়ম অনুযায়ী বিবাহের অনুমতি না পাওয়ায় মোবাইল ফোন বন্ধ রেখেছেন এমন ধারণা করছেন।

এদিকে নয় দিন ধরে ওই বাড়িতে স্কুল শিক্ষিকা অবস্থান নেওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

ধামরাই উপজেলার নান্নার ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, পারিবারিকভাবে ওই স্কুল শিক্ষিকার সঙ্গে নৌ-বাহিনীর সদস্যকে বিয়ে দেওয়ার জন্য তারা আলোচনা চালিয়ে গেলেও ছেলের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তা সম্ভব হচ্ছে না।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা জানান, বিষয়টি আমরা অবগত রয়েছি, আমরা স্কুল শিক্ষিকা আখি আক্তারের সঙ্গে এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কথা বলেছি। তবে তিনি কোনও আইনি সহায়তা না চাওয়ায় আমরা দু’বার তার কাছে গিয়ে ফিরে এসেছি।