Saturday , May 15 2021

কাজের সন্ধানে গিয়ে চু’রি করেন তারা

নির্মাণাধীন ভবন টার্গেট করে যান কাজের সন্ধানে। এরপর কর্ম’রত শ্রমিক ও প্রহরীদের সঙ্গে জুড়ে দেন খোশগল্প। এরই ফাঁকে চু’রি করেন বৈদ্যুতিক তার, পাইপ ফিটিংসের মালামালসহ নানা দামি জিনিসপত্র। এরপর শাড়ির আঁচলে লুকিয়ে দেন চ’ম্পট।

এভাবে একই ভবনে দু দফা চু’রি চালালেও তৃতীয় দফায় আর রক্ষা হয়নি তাদের। ভবন মালিকের হাতে ধ’রা পড়েছেন চক্রটির ৯ সদস্য। এরপর তাদের আ’ট’ক করে চট্টগ্রাম নগরের কোতোয়ালি থা’না পু’লিশ।

বুধবার গ্রে’ফতারের বিষয়টি জানানো হয়। এর আগে, মঙ্গলবার দুপুরে ফিরিঙ্গী বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রে’ফতার করা হয়।

গ্রে’ফতাররা হলেন- আকবরশাহ থা’নার কাঁচা বাজার জসিমের কলোনি এলাকার রোকসানা বেগম, হেলেনা বেগম, শাহিনুর বেগম, রেনু বেগম, বিবি রহিমা ও পারভিন বেগম এবং হালিশহর থা’নার ছোটপুল জাকের কলোনি এলাকার পারভিন আক্তার, বিবি ফাতেমা ও ম’রিয়ম বেগম।

পু’লিশ জানায়, গত ৯ ও ১২ এপ্রিল ফিরিঙ্গিবাজার এলাকায় নির্মাণাধীন একটি বহুতল ভবনে শ্রমিকের বেশে যান ওই ৯ নারী। এরপর নানা কৌশলে সেখানে কর্ম’রত শ্রমিক ও প্রহরীদের সঙ্গে জুড়ে দেন খোশগল্প। এভাবে চলতে থাকে প্রায় দেড়ঘণ্টা। এরই ফাঁকে ভবনটির দ্বিতীয় তলায় থাকা স্টোর রুম থেকে ৩৩ বান্ডিল বৈদ্যুতিক তার চু’রি করে শাড়ির আঁচলে লুকিয়ে পালিয়ে যান তারা।

কোতোয়ালি থা’নার ওসি মোহাম্ম’দ নেজাম উদ্দিন বলেন, ফিরিঙ্গী বাজারের প্রগতি সংঘ ক্লাব এলাকায় নির্মাণাধীন বহুতল ভবনটিতে এমন অ’ভিনব কায়দায় দু দফা চু’রি চালায় চক্রটি। পরে বিষয়টি নজরে এলে তৃতীয় দফায় চু’রি করতে গেলে তাদের ধরে পু’লিশে খবর দেন ভবন মালিক। এরপর তাদের গ্রে’ফতার করে থা’নায় নিয়ে আসা হয়।

ওসি আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে তারা চু’রির ঘটনা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় তাদের বি’রুদ্ধে মা’মলা করছেন ভবন মালিক।