Friday , April 16 2021

কবে বিদায় নেবে করোনা জা’নিয়ে দিল করোনার ভবিষ্যৎ’বাণী করা কিশোর

কয়েক যুগ পর সারা বিশ্বের সামনে এমন এক বিপর্যয় নেমে এসেছে।গৃহব’ন্দী মানুষেরা বলছেন, এমন এক বিপর্যয় কোনোদিন আসবে তা ভাবিনি।
সত্যি, করো’না ভা’ইরাস যে এভাবে সারা বিশ্বে থা’বা বসাবে তা আম’রা কেওই জানতাম না। কিন্তু এক বিষ্ময় বালক গতবছরই এই করো’না সংক’টের পূর্বাভাস দিয়েছিল।

অভিজ্ঞ আনন্দ নামে এক জ্যোতিষ বালক গতবছর ইউটিউবে একটি ভিডিও প্র’কাশ করে। ‘Severe Danger To The World From Nov 2019 To April 2020’
নামে ওই ভিডিওতে অভিজ্ঞ বলে, ২০১৯ এর নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যে একটি মা’রণ রো’গ সারা বিশ্বে সংক’ট সৃষ্টি করবে।

অভিজ্ঞ সেই ভিডিওতে জা’নায়, ২০২০ সালে নেমে আসা মা’রণ রো’গ মানবজাতির অস্ত্বিত্ব সংক’টে ফেলবে। যদিও সেই সময় অল্পবয়সী সেই বালকের কথায় কেও তেমন আমল দেননি।
কিন্তু অভিজ্ঞর পূর্বাভাস অক্ষরে অক্ষরে মিলে যাওয়ায় সে আবারও নতুন করে খবরের পাতায় উঠে এসেছে।সেই ভিডিওতে অভিজ্ঞ বলে, মা’রণ রো’গের প্রকোপ ২০২০ সালের ৩১শে মে এর মধ্যে কমে যাবে।

কিন্তু স’ম্প্রতি অভিজ্ঞ আবার একটি ভিডিও প্র’কাশ করে, সেখানে সে বলে ৩১ শে মে এর মধ্যে মা’রণ ভা’ইরাসের প্রকোপ কমলেও
তা দীর্ঘস্থা’য়ী হবে না।অভিজ্ঞ ভিডিওতে আরও জা’নায় ২০২০ সালের, ডিসেম্বরে সারা পৃথিবীতে আরও একটি সংক’ট নেমে আসবে।
সেই সংক’ট ২০২১ সালের ৩১ শে মা’র্চ পর্যন্ত স্থা’য়ী হবে। মা’রণ ভা’ইরাস করো’না থেকে বাঁচতে অভিজ্ঞ নিজেই কিছু প’রামর্শ দেয়। সে বলে মা’রণ ভা’ইরাস নাক বা কান দিয়ে প্রবেশ করবে না এর থেকে বাঁচতে হলে শ’রীরের প্র’তিরো’ধ ক্ষ’মতা বাড়াতে হবে।

তার জন্য নিয়মিত তুলসী পাতা খাওয়ার প’রামর্শ দিয়েছে অভিজ্ঞ। এছাড়াও জলে কাঁচা হলুদ,আদা ও জোয়ান ফুটিয়ে সেই জলের ভাপ নিতে বলেছে অভিজ্ঞ।
কয়েক যুগ পর সারা বিশ্বের সামনে এমন এক বিপর্যয় নেমে এসেছে।গৃহব’ন্দী মানুষেরা বলছেন, এমন এক বিপর্যয় কোনোদিন আসবে তা ভাবিনি। সত্যি, করো’না ভা’ইরাস যে এভাবে সারা বিশ্বে থা’বা বসাবে তা আম’রা কেওই জানতাম না। কিন্তু এক বিষ্ময় বালক গতবছরই এই করো’না সংক’টের পূর্বাভাস দিয়েছিল।

অভিজ্ঞ আনন্দ নামে এক জ্যোতিষ বালক গতবছর ইউটিউবে একটি ভিডিও প্র’কাশ করে। ‘Severe Danger To The World From Nov 2019 To April 2020’ নামে ওই ভিডিওতে অভিজ্ঞ বলে, ২০১৯ এর নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের এপ্রিলের মধ্যে একটি মা’রণ রো’গ সারা বিশ্বে সংক’ট সৃষ্টি করবে।

অভিজ্ঞ সেই ভিডিওতে জা’নায়, ২০২০ সালে নেমে আসা মা’রণ রো’গ মানবজাতির অস্ত্বিত্ব সংক’টে ফেলবে। যদিও সেই সময় অল্পবয়সী সেই বালকের কথায় কেও তেমন আমল দেননি।
কিন্তু অভিজ্ঞর পূর্বাভাস অক্ষরে অক্ষরে মিলে যাওয়ায় সে আবারও নতুন করে খবরের পাতায় উঠে এসেছে।সেই ভিডিওতে অভিজ্ঞ বলে, মা’রণ রো’গের প্রকোপ ২০২০ সালের ৩১শে মে এর মধ্যে কমে যাবে।

কিন্তু স’ম্প্রতি অভিজ্ঞ আবার একটি ভিডিও প্র’কাশ করে, সেখানে সে বলে ৩১ শে মে এর মধ্যে মা’রণ ভা’ইরাসের প্রকোপ কমলেও তা দীর্ঘস্থা’য়ী হবে না।অভিজ্ঞ ভিডিওতে আরও জা’নায় ২০২০ সালের, ডিসেম্বরে সারা পৃথিবীতে আরও একটি সংক’ট নেমে আসবে।
সেই সংক’ট ২০২১ সালের ৩১ শে মা’র্চ পর্যন্ত স্থা’য়ী হবে। মা’রণ ভা’ইরাস করো’না থেকে বাঁচতে অভিজ্ঞ নিজেই কিছু প’রামর্শ দেয়। সে বলে মা’রণ ভা’ইরাস নাক বা কান দিয়ে প্রবেশ করবে না এর থেকে বাঁচতে হলে শ’রীরের প্র’তিরো’ধ ক্ষ’মতা বাড়াতে হবে।