Thursday , September 16 2021

৪১ বছ‘রের ডি‘ভোর্সি না’রী পাত্র চা‘ন ২৩ বছ‘রের, সাথে দি‘বেন ১০ লক্ষ টা‘কাও

ব্যক্তি,গত জীবনে ডিভো’র্সি। ফের বিয়ে করতে চান। কি,ন্তু পাত্র ২৩ বছর ব’য়সী। একই সাথে বান্ধ,বী থাকা যাব’ে না, ইন্টারনেট ব্যব,হার করা যাব’ে না সহ রয়েছে নানা শ,র্ত।পাত্র চেয়ে এমনই একটি বিজ্ঞা,পন সো,শ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়া,চ্ছে। জানা গেছে, ৪১ বছরের ওই না,রী বাংলাদেশি হলেও থাকেন মালয়েশিয়ায়।

সেখানে পাত্রী,র নিজ,স্ব ব্য,বসা ও বাড়িগাড়ি রয়েছে। বিজ্ঞা,পনে বলা হয়েছে, পা,ত্রকে বিয়ের পর পা,ত্রীর ব্য,বসা দেখা,শোনায় সা,হায্য করতে হবে। পাত্র চেয়ে যেসব শ,র্ত দেয়া হয়েছে- অ,বশ্যই হ্যান্ড,সাম
এ,বং সুন্দর দেখতে ‘হতে হবে ফ,র্সা এ,বং ভাল সা,স্থ্যের ‘হতে হবে। কালো ও চা’পাভা’ঙ্গা পাত্রদের আবেদন করার দরকার নেই।বয়সঃ ২৩ থেকে ২৮ এর মধ্যে ‘হতে হবে।
বিয়ের পর কলেজে/ভার্সি,টিতে পড়াশোনার নামে মেয়েদের সাথে ন’ষ্টামি করা যাব’েনা। বউয়ের কথার অবা,ধ্য হওয়া যাব’েনা। কো,নও মেয়ে ব,ন্ধু থাকা চলবে না।অনুমতি ছাড়া বাড়ির বাইরে যাওয়া যাব’েনা। ফেইসবুক/ইন্টারনেট ব্যব,হার করা যাব’েনা।সর্ব,শেষ ওই বিজ্ঞা,পনে লেখা হয়েছে, পাত্রকে টাকাপয়সার কো,নও অভাব দেয়া হবেনা।
বিজ্ঞাপ,নটি ভার্চু,য়ালি ভাইরাল হয়ে পড়েছে। অনেকেই ইতি,বাচক নেতি,বাচক মন্ত,ব্য করছে। কে দ্বিচারিতা করেছে রোশনের স’ঙ্গে, শ্রাবন্তী না অন্য কেউ?রাজনীতিতে যোগদানের পর প্রাক্তন স্ত্রী শ্রাবন্তীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন রোশন সিং।
এরপর স্ত্রী-র পক্ষ নিয়ে পরোক্ষভাবে মুখও খুলেছিলেন।এরপর বেশ কিছুদিন কে’টে গেল নীরবে। তবে নীরবতা ভে’ঙে আবারো কটাক্ষের তীর ছুঁড়েছেন রোশন। সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও ঝড় তুলেছে রোশনের দেওয়া স্ট্যাটাস। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন রোশন।
লিখেছেন, স’ঙ্গী দ্বিচারিতা করলে তাকে ত্যাগ করাই শ্রেয়। বিশেষ করে সে যদি তোমার অনুপস্থিতিতে অন্যের স’ঙ্গে শয্যা ভাগ করে! রোশনের এই স্টোরিই আবারো জল্পনা কল্পনার সৃষ্টি করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটাগরিকদের প্রশ্ন ,এই কটাক্ষ কার দিকে ছুড়লেন রোশন?
আগের মতোই স্ত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কেই কি বিঁধলেন তিনি? কেনই বা বিঁধলেন? কে দ্বিচারিতা করেছেন তার স’ঙ্গে! তবে এসব প্রশ্নের কোনো উত্তর মেলেনি এখনো।অনেকে বলছেন, শুধুই কটাক্ষ নয়, মন্তব্যে জড়িয়ে রয়েছে ভ’য়ঙ্কর অভিযোগ।
সংগৃহীত উক্তি কি রোশনের জীবনের কথাই বলছে? তাই তিনি সরে গিয়েছেন, নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন সবার থেকে? কৌতূহলে উত্তাল নেট মাধ্যম। বিচ্ছেদের পর থেকেই নানা ভাবে শ্রাবন্তীকে বিঁধছেন রোশন।কখনো ফেসবুকের পাতায় কখনোবা ইনস্টাগ্রামের স্টোরিতে। তবে কী এবারো কটাক্ষের তীর শ্রাবন্তীর দিকেই!